কামরুলকে ফিরিয়ে আনতে সৌদি যাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তারা

প্রকাশিত: ৫:৫৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০১৫

কামরুলকে ফিরিয়ে আনতে সৌদি যাচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তারা

 

rajon

সুরমা মেইলঃসিলেটে শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলামকে সৌদি আরব থেকে দেশে আনতে সৌদি যাচ্ছেন তিন পুলিশ কর্মকর্তা।

রোববার (১১ অক্টোবর) দিবাগত রাতে বিমানের একটি ফ্লাইটে পুলিশের তিন কর্মকর্তা সৌদি আরব যাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) তাকে নিয়ে দেশে ফিরবেন তারা।

বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া) রহমত উল্লাহ।

তিনি বলেন, সৌদি আরব থেকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে কামরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে।

তিনি ছাড়াও এই দলে রয়েছেন পুলিশ সদর দফতরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুবুল করিম ও সিলেট মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আ ফ ম নিজাম উদ্দিন।

সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদেরকে সৌদি আরব পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় এবং রোববার (১১ অক্টোবর) দিবাগত রাত ২টায় শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমানের একটি ফ্লাইটে তারা সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন। ১৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় দেশে ফিরবেন বলে জানান রহমত উল্লাহ।

রাজনকে হত্যার পরপরই সৌদি আরব পালিয়ে যান প্রধান আসামি কামরুল ইসলাম। তাকে পালিয়ে যেতে পুলিশের বিরুদ্ধে সহযোগিতার অভিযোগ উঠে। বর্তমানে রিয়াদে আটক অবস্থায় রয়েছেন কামরুল। সৌদি সরকারও তাকে ফিরিয়ে দিতে সম্মত রয়েছেন।

তিন পুলিশ সদস্যের সৌদি আরর যাওয়া-আসা বাবদ প্রায় ৪ লাখ টাকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে একটি সূত্র।

গত ৮ জুলাই সিলেটের কুমারগাঁওয়ে চুরির অপবাদে শিশু শেখ সামিউল আলম রাজনকে (১৩) পিঠিয়ে হত্যা করা করা হয়। নির্যাতনের ভিডিওচিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়লে দেশে-বিদেশে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

আলোচিত এই হত্যা মামলায় কামরুলসহ তিনজনকে পলাতক দেখিয়ে গত ১৩ সেপ্টেম্বর ১৩ আসমির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্যদিয়ে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়। এরই মধ্যে সাক্ষ্য গ্রহণের মাধ্যমে মামলার বিচার প্রক্রিয়া চলছে। ইতোমধ্যে রাজনের বাবা-মাসহ ১৭ জন এ মামলায় সাক্ষি দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

আমাদের ভিজিটর

Flag Counter

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com