ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন

প্রকাশিত: ৭:১৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০২৩

ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :
ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈল থানার ইজিবাইক চালক সাইফুল্লাহ (১৫) হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন বিষয়ে জেলা পুলিশের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশের আয়োজনে বৃহস্পতিবার (১৬) মার্চ দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে এ সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।

 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক নিরস্ত্র (ডিআইও-১) ডিএসবি আব্দুল মতিন প্রধান, হরিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ তাজুল ইসলাম।

 

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, চলতি বছরের ৪ মার্চ রাণীশংকৈল থানার রামরাই দীঘি এলাকায় ভুট্টা ক্ষেতে প্লাস্টিকের চিকন দড়ি দিয়ে হাত পা বাঁধা অবস্থায় অজ্ঞাত একটি অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে একটি ক্লু-লেস মামলা রজু হয় রানীশংকৈল থানায়। পুলিশ জানতে পারে মরদেহটি ইজিবাইক চালক সাইফুল্লাহ’র (১৫)। মামলার ছাঁয়া তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় গোয়েন্দা বিভাগকে। গোয়েন্দা বিভাগ, রানীশংকৈল থানা পুলিশ ও হরিপুর থানা পুলিশের যৌথ অভিযান পরিচালনা করে তদন্ত শুরু হয়।

ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন

এর আগে চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি হরিপুর থানায় ইজিবাইক চুরির একটি মামলায় পুলিশ জানতে পারে যে, হরিপুর থানার ধীরগঞ্জ বাজার এলাকায় রাকিব (১৫) নামে এক ইজিবাইক চালককে প্লাস্টিকের চিকন দড়ি দিয়ে হাত পা বেঁধে মুখে রুমাল দিয়ে রাস্তার পাশে ভুট্টা ক্ষেতে ফেলে ইজি বাইক নিয়ে চম্পট দেয় চোরেরা। পরে রাকিবের বাবার কাছে ফোন দিয়ে হিমু নামে এক ব্যক্তি ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।

 

পুলিশ তদন্তে দেখতে পায়, রাণীশংকৈলের ইজিবাইক চালক সাইফুল্লাহ ও হরিপুরের ইজিবাইক চালক রাকিবকে একই ভাবে প্লাস্টিকের চিকন দড়ি দিয়ে হাত পা বেঁধে ভ্ট্টুা ক্ষেতে ফেলে রাখা হয়েছিল। পরে উভয় ঘটনা একই চক্রের কাজ ধারনা থেকে রাকিবের পিতার নিকট চাঁদা দাবিকারী হিমুকে আটক করা হয়। এরপর থেকেই বেরিয়ে আসে সাইফুল্লাহ হত্যা ও রাকিবের অটো চুরির ঘটনায় জড়িতদের নাম। পরে গ্রেফতারকৃত ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদে উভয় ঘটনায় তারা জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে।

 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- রাণীশংকৈল উপজেলার মো: মেহেদী হাসান (১৮), মো: আব্দুল কাদের (৩০), মো: সাদেকুল ইসলাম ওরফে মোজাম্মেল হক মজু (২৪), মো: সজল (২৪), মো: মহিরুল ইসলাম (৪০), মো: মাহবুবু হোসেন (২০), মো: নুর আলম ওরফে মংলা (১৯), মো: মামুন ওরফে বোবা (১৮), মো: সোহেল রানা (১৮) ও মো: ইমরুল কায়েস ওরফে ইমু (২৬)। বৃহস্পতিবার গ্রেফতারকৃতদের আদালতে প্রেরন করা হয়।

 

(সুরমামেইল/মো: ইসলাম)


সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

রাফি গার্ডেন সুপার হোস্টেল।

 

আমাদের ভিজিটর
Flag Counter

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com