চিরকুটে শর্ত দিয়ে বিশ্বনাথে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ৫:২৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪

চিরকুটে শর্ত দিয়ে বিশ্বনাথে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :
সিলেটের বিশ্বনাথের পৌর এলাকার ৮নম্বর ওয়ার্ডের জানাইয়া গ্রামের মৃত রণধীর দেবের ছেলে লিটন দেব (২৮) নামে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। লিটন দেব মৃত্যুর আগে একটি সাদা কাগজে চিরকুট লিখে আত্মহত্যা করেছেন।

 

তার লেখা চিরকুট হুবুহুব তুলে ধর হলো- ‘আমার সবকিছু ডয়ারে খাতায় লিখা। আমার মৃত্যুর পর বাড়িতে নিবায় না, আমারে চালিবন্দর দাও (দাহ) করবায়। দোকানে কাষ্টমারের মাল দিয়া দিও।’ এভাবে লিটন দেব (২৮) নামের এক তরুণ ব্যবসায়ী।

 

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাতে সিলেটের বিশ্বনাথ পৌরশহরের কারিকোনায় নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভিতরে গলায় ফাঁস দেন ওই ব্যবসায়ী। তিনি পৌর এলাকার ৮নম্বর ওয়ার্ডের জানাইয়া গ্রামের মৃত রণধীর দেবের ছেলে।

 

স্থানীয়রা ব্যবসায়ীরা জানান, রাতে বাসায় না যাওয়ায় সাড়ে ৯টার দিকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের খোঁজ নিয়ে ডাকাডাকি করে কোনো শব্দ না পেয়ে পুলিশের সাহায্যে সাটার উঠিয়ে লিটনের ঝুলন্ত মরদেহ দেখা যায়।

 

সাথে সাথে ওসমানীনগর সার্কেল আশরাফুজ্জামান পিপিএম ও থানার ওসি রমাপ্রসাদ চক্রবর্তি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরপর পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালের মর্গে লাশ প্রেরণ করে।

 

এ ব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার এসআই দূর্গা কুমার দেব বলেন, মরদেহ উদ্ধারের পর যুবকের হাতের লেখা একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। যেখানে কাউকে দায়ী করেননি তিনি। লাশ সোমবার ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

(সুরমামেইল/একে)


সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

রাফি গার্ডেন সুপার হোস্টেল।

 

আমাদের ভিজিটর
Flag Counter

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com