নেপাল এখন ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র

প্রকাশিত: ১:৫০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৫

নেপাল এখন ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র
untitled-1_27294
সুরমা মেইলঃ নেপালে আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন সংবিধান গৃহীত হয়েছে। অনেক বছরের রাজনৈতিক আন্দোলনের পর এই সংবিধান হিন্দু রাষ্ট্র নেপালকে একটি ধর্ম নিরপেক্ষ ফেডারেল রিপাবলিক হিসেবে ঘোষণা করতে চলেছে।
চলতি সপ্তাহেই পার্লামেন্টে এই নতুন সংবিধান অনুমোদিত হয়। বড় বড় দলগুলোর মধ্যে দীর্ঘদিনের অনৈক্যের কারণে নতুন সংবিধান প্রণয়ন বিলম্বিত হয়। পার্লামেন্টের ৬০১ সদস্যের মধ্যে ৫০৭ জন নতুন সংবিধান প্রণয়নের পক্ষে ভোট দেন। ছোট ছোট দলের সদস্যরা এই ভোট বর্জন করে।
তবে এই সংবিধানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে দেশটির কিছু গোষ্ঠী। তারা নেপালকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসেবেই দেখতে চায়। কিছু কিছু ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীও মনে করছে এই সংবিধান বৈষম্যমূলক হতে পারে।
নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালার মিডিয়া উপদেষ্টা প্রতীক প্রধান বলেন, ‘নেপালি জনগণের বহুদিনের সংগ্রামের পর এই সংবিধান গৃহীত হতে যাচ্ছে। এই সংবিধানে নেপালি সমাজের শাখাগুলোকে সমন্বিত ও প্রতিনিধিত্বমূলকভাবে দেখা হয়েছে’।
প্রসঙ্গত,মাওবাদী বিদ্রোহীদের ১০ বছরের গৃহযুদ্ধের পর ২০০৬ সালে একটি শান্তি চুক্তি হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০৮ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচন জয়ের মাধ্যমে মাওবাদীরা ২৪০ বছরের রাজতন্ত্রের অবসানে এই সংবিধান প্রতিষ্ঠিত করে।
বিশ্লেষকরা দাবি করেন, নেপালের দুটি সমস্যা ছিল, সংবিধান প্রণয়ন এবং সশস্ত্র যোদ্ধাদের আত্তীকরণ। আলোচনা ও ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে দ্বিতীয় সমস্যাটি প্রায় সমাধান হয়েছে। সংবিধান প্রশ্নে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল কাছাকাছি এসেছে। কিন্তু এরপরও প্রদেশের সংখ্যা ও নৃতাত্তি্বক জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব নিয়ে মতানৈক্য রয়েছে। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা নিয়েও রয়েছে মতানৈক্য। ক্ষমতাসীন জোট চাচ্ছে দুই-তৃতীয়াংশের ভিত্তিতে সংবিধান প্রণয়ন করতে, আবার বিরোধী দলের দাবি ঐকমত্যের ভিত্তিতে সংবিধান প্রণয়ন করতে হবে।
তবে আপাতদৃষ্টে এই সংকটের মোকাবেলা করতে পারবে নেপাল সরকার এমনটাই আশা করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।
সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

রাফি গার্ডেন সুপার হোস্টেল।

 

আমাদের ভিজিটর
Flag Counter

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com