শেষ ষোলোর আশা বাঁচিয়ে রাখলো আর্জেন্টিনা

প্রকাশিত: ৩:২৬ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০২২

শেষ ষোলোর আশা বাঁচিয়ে রাখলো আর্জেন্টিনা

খেলাধুলা ডেস্ক :
বিশ্বকাপে টিকে থাকতে জয় ছাড়া বিকল্প নেই। কিন্তু সৌদি আরবের বিপক্ষে হারের ধাক্কা যেন সামলে উঠতে পারেননি লিওনেল মেসিরা। ম্যাচের প্রথমার্ধের পারফরম্যান্স অন্তত সেটাই বলে! তবে শুরুর ছন্দহীনতা কাটিয়ে আর্জেন্টিনাকে পথ দেখান মেসি। চোখ জুড়ানো গোলে গড়ে দেন ম্যাচের ভাগ্য। সঙ্গে অবদান রাখেন ফার্নান্দেজ। দুই তারকার দৃঢ়তায় মেক্সিকোকে হারিয়ে বিশ্বকাপে নিজেদের আশা বাঁচিয়ে রাখল আর্জেন্টিনা।

 

কাতার বিশ্বকাপে ‘সি’ গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মেক্সিকোকে ২-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। লুসাইল স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ম্যাচটির প্রথমার্ধে মেক্সিকোর বিপক্ষে গোলহীন থাকে দুদল। ম্যাচে ভাগ্য গড়ে দেওয়া গোল দুটি আসে দ্বিতীয়ার্ধে।

 

বিশ্বকাপের শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হয়েছে আর্জেন্টিনার। নিজেদের প্রথম ম্যাচে হেরে যায় সৌদি আরবের কাছে। প্রথম ধাক্কায় আর্জেন্টিনার পিঠ ঠেকেছে দেয়ালে। সেই চাপ সামলে মেসিরা তুলে নিলেন দুর্দান্ত জয়।

 

এমন সমীকরণের ম্যাচে শুরুতে খুব একটা ছন্দে দেখা গেল না আর্জেন্টিনাকে। ম্যাচের ৩০ মিনিটে একবারও আক্রমণে যেতে পারেনি লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। শুরুতে উল্টো দাপট দেখিয়েছে মেক্সিকো।

 

ম্যাচের ২০তম মিনিটে ফ্রি কিক পায় মেক্সিকো। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি। এর পাঁচ মিনিট পর মেসির নেওয়া শট ঠিকানা মিস করে। ৩২তম মিনিটে দি পল ফাউলের শিকার হলে ফ্রি কিক পায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু বক্স থেকে বেশ দূরে হওয়ায় তার সুবিধা নিতে পারেনি আর্জেন্টিনা।

 

প্রথমার্ধে একবার ভালো সুযোগ আসে আর্জেন্টিনার। ডান দিক থেকে ডি মারিয়ার কর্ণার কিক ডি বক্সে ভেতরের দিকে আসছিল। মাঝামাঝি জায়গায় থাকা লাউতারো মার্টিনেজ হেড দিয়ে জালে পাঠাতে পারতেন। কিন্তু মেরে দেন পোস্টের বাইরে। সহজ সুযোগ হারায় আর্জেন্টিনা। এরপর বাকি সময়ে আর গোল না পাওয়ার হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়ে লিওনেল স্কালোনির দল।

 

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণে ওঠেন মেসি। তখনই প্রতিপক্ষের ডি বক্সে ফাউলের শিকার হন। ফ্রি কিক পায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু এবারও ব্যর্থ মেসি। ২২ গজ দূর থেকে নেওয়া ফ্রি কিক পোস্টের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন পিএসজি তারকা।

 

তবে অপেক্ষার প্রহর আর লম্বা হতে দেননি মেসি। ম্যাচের বয়স তখন ৬৪ মিনিট। ডান দিক থেকে মেসি বল বাড়ান ডি মারিয়া। নিজের দৃঢ়তায় বল নিয়ে প্রতিপক্ষের ডি বক্সের সামনে যা মেসি। ডি বক্সের বাইরে থেকে মাটি গড়ানো নিচু শটে লক্ষ্যভেদ করেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

 

পরের গোলটি আসে ফার্নান্দেজের পা থেকে। ম্যাচের ৮৭তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে দুর্দান্ত শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফার্নান্দেজ। ম্যাচের বাকি অংশেও সুযোগ আসে আর্জেন্টিনার। তবে গোলের দেখা আর মেলেনি। দুই গোলের ব্যবধান ধরে রেখেই শেষ পর্যন্ত মাঠ ছাড়ে লিওনেল স্কালোনির দল।

 

পুরো ম্যাচে মেক্সিকান শিবিরে ৫বার আক্রমণ করে আর্জেন্টিনা। যার মধ্য অনটার্গেট শট ছিল ২টি। দুটিতেই মেলে সাফল্য। বিপরীতে ৪বার আক্রমণ করে মেক্সিকানরা। যার একটি ছিল অনটার্গেট শট।

 

এই নিয়ে বিশ্বকাপে মেক্সিকোর বিপক্ষে চারটি ম্যাচ খেলেছে আর্জেন্টিনা। সবগুলোতেই জয়ের স্বাদ পেয়েছে ‘আলবিসেলেস্তেরা।’ মেক্সিকোর পর এবার পোল্যান্ডকে হারাতে পারলেই দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকেট পাবে লিওনেল মেসির দল।


 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com